গোপালগঞ্জে বিদ্যালয়ের সীমানা প্রাচীর নির্মানকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ : আহত প্রধান শিক্ষক

গোপালগঞ্জে বিদ্যালয়ের সীমানা প্রাচীর নির্মানকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ : আহত প্রধান শিক্ষক
March 20 07:05 2017

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি : গোপালগঞ্জ শহরের বিসিক ব্রিজ সংলগ্ন মাষ্টার পাড়া এলাকায় এইচ এ এম কে ল্যাবরেটরী বিদ্যালয়ের সীমানা প্রাচীন নির্মান কে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সংষর্ষে ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কে মারপিটেরও ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।
অভিযোগ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, গোপালগঞ্জ শহরের বিসিক ব্রিজ সংলগ্ন মাষ্টার পাড়া এলাকায় প্রতিষ্ঠিত এইচ এ এম কে ল্যাবরেটরী বিদ্যালয়ের সীমানা প্রাচীর কিছু দিন আগে ভেঙ্গে পড়ে। গতকাল বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা প্রধান শিক্ষক মো: ইকবাল হোসেন ভেঙ্গে পড়া সীমানা প্রাচীর পুনরায় নির্মান করতে গেলে ওই এলাকার হারেজ মোল্লার ছেলে ডন মোল্লার নেতৃত্বে ৫/৬জন যুবক বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা প্রধান শিক্ষক মো: ইকবাল হোসেনের উপর লাঠি-সোটা নিয়ে আক্রমন করে এবং তাকে বেধড়ক মারপিট করে। এ সময় ইকবাল হোসেনের চিৎকারে এলাকাবাসী এগিয়ে আসলে তারা পালিয়ে যায়। স্থানীয়রা ইকবাল হোসেনকে উদ্ধার করে গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যা হাপাপাতালে ভর্তি করে। বর্তমানে ইকবাল হোসেন হাসপাতালে চিকিৎসাধীর রয়েছে।
চিকিৎসাধীন অবস্থায় হাসপাতালে বেডে শুয়ে এইচ এ এম কে ল্যাবরেটরী বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা প্রধান শিক্ষক মো: ইকবাল হোসেন সাংবাদিকদের জানায়, আমার বিদ্যালয়ের সীমানা প্রাচীর ভেঙ্গে পড়ায় আমি ওই প্রাচীর টি পুনরায় নির্মান করতে যাই। এ সময় হারেজ মোল্লার ছেলে ডন মোল্লার নেতৃত্বে প্রায় ৫/৬জন যুবক এসে আমাকে সীমানা প্রাচীর নির্মান করতে বাঁধা দেয় এবং নিজের জমি দাবী করে ডন মোল্লাসহ ৫/৬জন যুবক আমাকে মারপিট করে আহত করে। আমি ২০১৩ সালে ১৬ শতাংশ জমি নিজে ক্রয় করে এই স্কুল প্রতিষ্ঠা করি। ছাত্র ছাত্রীদের নিরাপত্তার জন্য স্কুলের সীমানা প্রাচীর দেওয়া হয়েছিল।

  Article "tagged" as:
  Categories:
write a comment

0 Comments

No Comments Yet!

You can be the one to start a conversation.

Add a Comment

Your data will be safe! Your e-mail address will not be published. Also other data will not be shared with third person.
All fields are required.