মেহেরপুর এখন সবুজের সমারোহ

মেহেরপুর এখন সবুজের সমারোহ
March 21 13:11 2017 Print This Article

মেহের আলী বাচ্চু,মেহেরপুর প্রতিনিধি : মেহেরপুর  জেলার  ৩টি উপজেলা জুড়ে এখন সবুজের বিছানা। যতদূর চোখ যায় শুধু সবুজ আর সবুজ বিছানা দেখাযায়। চর্তুদিকে এক নয়নাভিরাম দৃশ্য। কৃষকের হৃদয়ে সঞ্চারিত হচ্ছে ভিন্ন আমেজ।

চাহিদা অনুযায়ী বিদ্যুৎ নেই। ভুগর্ভস্থ পানির স্তর নিচে নেমে গেছে। সেচ নিয়ে দুশ্চিস্তার মাঝেও কর্মবীর কৃষকরা বিশাল জনগোষ্ঠীর খাদ্য চাহিদা মেটাতে দিনরাত জমির সমানতালে পরিশ্রম করে আসছেন। উক্ত সবুজের জমি থেকে এক মুহুর্তের বসে থাকার সময় নেই কৃষকের। সারের মূল্য কম হলেও সহজলভ্যতা আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় কৃষকরা বোরো আবাদে বিরাট সুফল পাচ্ছেন। সার্বিক আবাদ পরিস্থিতি খুবই ভালো। এই চিত্র গাংনী  উপজেলার।

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, ৩টি উপজেলার ১৮ টি ইউনিয়নে চলতি বোরো মৌসুমে ২১  হাজার ৩ শত ৫০ হেক্টর জমিতে কৃষকরা বোরো চাষ আবাদ করেছেন। উপজেলা কৃষি অফিসার রইচ  উদ্দিন জানান, এ উপজেলায় বোরো আবাদে সরকারি লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৬ হাজার ৬ শত ৪৫ হেক্টর। কিন্তু ফসলের ভাল ফলনে উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা ৩৩ হাজার ৭৫ মেঃ টন হবে বলে জানান। মাঠ পর্যায়ে উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তারা বলেছেন, কৃষি অর্থনীতিতে উদ্দীপনা আনতে বহুমুখী পদক্ষেপের ফল এটি।

কৃষি কার্যক্রমকে আরও এগিয়ে নেয়ার চেষ্টা চলছে। মাঝে মধ্যে নানামুখী সমস্যায় কৃষকরা দুশ্চিন্তায় পরে এটি সত্য, কিন্তু বর্তমানে কোন সমস্যা দেখা যাচ্ছে না। এ বছর বোরো ধানের বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা রয়েছে। তবে কৃষকদের শেষ হাসিটা অ¤¬ান থাকে অর্থাৎ ধান ঘরে তুলে নেয়ার আগ পর্যস্ত যাতে বড় ধরনের কোন প্রাকৃতিক দুর্যোগ না হয় সেই প্রত্যাশা করেছেন সকল কৃষকরা। উপজেলার মিরাশী ইউনিয়নের কৃষ্ণপুর গ্রামের কৃষক আলহাজ্ব আকবর হোসেন সহ বিভিন্ন এলাকার কৃষকদের সাথে আলাপ করলে জানা যায়, সংশি¬ষ্টরা কৃষি খাতের দিকে সার্বক্ষণিক দৃষ্টি রাখবেন।

মাঠ ঘুরে দেখা গেছে, কৃষকদের দম ফেলার সুযোগ নেই। ধান পরিচর্যা ও সেচ দেয়া সহ প্রায় সারাক্ষনই রয়েছে ব্যস্ততায়। মাঠে মাঠে দ্রত বাড়ছে বোরো ধান। দ্রত  গতিতে বেড়ে যাচ্ছে বোরো ধানের চেহারা। আনন্দে দুলছে কৃষকদের মন। কিন্তু চলতি আবহাওয়ার বৈরী পরিবেশ ও শিলাবৃষ্টির কারণে অনেক বোরো ধানের ফসলি জমি বিনষ্ট হতে শুরু  করেছে।

view more articles

About Article Author

write a comment

0 Comments

No Comments Yet!

You can be the one to start a conversation.

Add a Comment

Your data will be safe! Your e-mail address will not be published. Also other data will not be shared with third person.
All fields are required.