সানি লিওনের সাক্ষৎকার

সানি লিওনের সাক্ষৎকার
February 20 10:04 2017

অনলাইন ডেস্ক: মাত্র বছর তিনেক হলো বলিউডে পা রেখেছেন অভিনেত্রী সানি লিওন। পর্নো তারকার খ্যাতির পরই তার নামের সঙ্গে যুক্ত হয়েছে অভিনেত্রী। তাও বলিউডের অভিনেত্রী। এরই মধ্যে তিনি তার শারীরিক সৌন্দর্য্য আর অভিনয়শৈলী দিয়ে মাত করে দিয়েছেন তামাম বলিউড জগৎকে। তার অভিনীত ছবি সুপার হিট হয়েছে। এক কথায় বলা যায়, তাকে নিয়ে আলোচনার শেষ নেই। তবে এখনও তার বিপরীতে শীর্ষ অনেক অভিনেতা অভিনয় করতে সংশয়ে ভুগছেন। সমপ্রতি তার বিপরীতে অভিনয় করতে শীর্ষ অভিনেতাদের অনীহার কথা স্বীকার করে নিলেন সানি লিওন নিজে। এ নিয়ে ভারতের একটি ট্যাবলয়েড পত্রিকাকে তিনি সাক্ষাৎকার দিয়েছেন। তাতে বলিউডে নিজের ভাবমূর্তি নিয়েও খোলামেলা আলোচনা করেছেন তিনি। এখানে সেই
সাক্ষাৎকার তুলে ধরা হলো:
প্রশ্ন: আপনার আগামী ছবি ‘কুচ কুচ লোচা হ্যাঁয়’। এটি কি আপনার আগের ছবিগুলোর মতোই?
উত্তর: না। এটি একটি পারিবারিক গল্পের ছবি। পুরো ছবি কেন্দ্রীভূত হয়েছে রামকাপুর ও তার পরিবারের বিভিন্ন নির্দোষ মজার ঘটনা নিয়ে।
প্রশ্ন: তাহলে কেন এটি সেন্সর বোর্ড থেকে ‘এ’ (অ্যাডাল্ট- কেবলমাত্র প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য) সনদ পেয়েছে?
উত্তর: আমরা ওই সিদ্ধান্ত পরিবর্তনের চেষ্টায় রয়েছি।
প্রশ্ন: এখন পর্যন্ত আপনার বলিউড যাত্রাকে কিভাবে দেখছেন?
উত্তর: আমি মনে করি, কারো সাহায্য ছাড়াই আমি নিজের পথে পৌঁছেছি। আমি যাতে ব্যর্থ হই, এটা বলিউডে অনেকেই দেখতে চাইবেন। কিছু অভিনেতা আমার সঙ্গে কাজ করতে চান না। আর অন্যরা আমার সঙ্গে কাজ করতে চান হয় আমার নামের জন্য, অন্যথায় আমার পেশাদারিত্বের কারণে।
প্রশ্ন: কোন ধরনের মানুষ আপনার ব্যর্থতা কামনা করে?
উত্তর: আমি জানি না। আমি এখানে জন্মগ্রহণ করি নি। আমি মনে করি, আমি জীবনে যা করেছি, তার সবকিছুর জন্যই আমার ভক্তরা আমাকে অনুসরণ করে। গত তিন বছরে শুধু আমার ভক্তদের সংখ্যা বাড়েনি। বেড়েছে গত ১৪ বছর ধরে।
প্রশ্ন: আপনি একবার বিবাহিত তারকা অভিনেতাদের স্ত্রীদের নিয়ে কথা বলেছিলেন। আপনি বলেছিলেন, তারকাদের স্ত্রীরা চান না যে, তারা আপনার সঙ্গে অভিনয় করুক। কেননা, তারা এতে নিরাপদ বোধ করেন না। আপনি কি এখন সে পরিস্থিতির কোন পরিবর্তন দেখতে পান?
উত্তর: হ্যাঁ, আমি সেটা বলেছিলাম। কিন্তু নির্দিষ্ট করে কাউকে বুঝাই নি। এসব জিনিস আমি শুনে থাকি। তবে এটি পুরোটাই বানোয়াট হতে পারে। আমি মনে করি, সবকিছুই পরিবর্তিত হবে। সানি লিওন হয়ে ওঠার মধ্যেই আমাকে বিশ্বাস রাখতে হবে।
প্রশ্ন: আপনার সমপর্কে এখানে এক ধরনের ধারণা রয়েছে। সেটি কি কখনও পরিবর্তিত হবে?
উত্তর: আমার অভিনয় দক্ষতা ও ব্যবসা সফলতার ওপর ভিত্তি করেই আমার সমপর্কে ধারণার পরিবর্তন ঘটবে। আমি আশা করি, পরিবর্তনটা দ্রুতই ঘটবে। কেননা, মানুষজন এখন খুঁতখুঁতে।
প্রশ্ন: এখানকার মানুষ এখনও আপনাকে আপনার অতীত দিয়ে বিবেচনা করে। যেটি যুক্তরাষ্ট্রে হয় না। এ জিনিসটি কি আপনাকে বিব্রত করে?
উত্তর: আমি যুক্তরাষ্ট্রে তেমন একটা জনপ্রিয় ছিলাম না। আর এখানে আমি নিজের পরিচয় লুকিয়ে চলতেই পারি না। নিজের দৈহিক মিলনের ছবি ফাঁস হয়ে যাবার পর, যুক্তরাষ্ট্রে একই অবস্থা হয়েছিল কিম কার্দাশিয়ানেরও। মানুষ সব জায়গায় সবাইকে সূক্ষ্মভাবে বিশ্লেষণ করে। এটা নির্ভর করে আপনার খ্যাতির মাত্রার ওপর।
প্রশ্ন: আপনি কি বলিউডকে নিজের ঘর ভাবতে পারছেন?
উত্তর: আমি এখানে বেশ ভালোই আছি। প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে উঠে শুটিং-এ যাই। এরপর ফিরে আসি। আমি যখন কাজে থাকি, তখন আমার মাথায় অন্য কিছু থাকে না।
প্রশ্ন: একতা কাপুরের সঙ্গে আপনার কি কোন গণ্ডগোল হয়েছে?
উত্তর: না তো! কেন?
প্রশ্ন: গুজব রয়েছে, আপনাদের মধ্যে সময়টা ভালো যাচ্ছে না।
উত্তর: আমি একতা কাপুরের সঙ্গে কথা বলি না। কিন্তু তার প্রতি আমার অনেক সম্মান রয়েছে। সে পরিবর্তনের প্রতিনিধিত্ব করে। সে এমন এক বিষয়ের অগ্রদূত, যে বিষয় নিয়ে এখানে কেউ কাজ করার সাহস পায় না। তার মুভি বেশ সাহসী। তার ছবিগুলো এমন সীমা ছাড়াচ্ছে, যা এখনও কেউ ছাড়াতে পারে নি। এটাই কি সে বিষয়, যা নিয়ে আমি একমত হতে পারি? হয়তো না। কেননা, আমি ওই পথে আর পা মাড়াতে চাই না।
প্রশ্ন: তার মানে একতার সঙ্গে আপনার আর কাজ করা হচ্ছে না?
উত্তর: যদি কোন পার্টিতে আমাদের দেখা হয়, আমরা কথা বলবো। আমি ‘মাস্তিজাদে’তে তুষার কাপুরের সঙ্গে কাজ করেছি। সে আমাকে কখনও বলেনি, আমার বোন তোমাকে পছন্দ করে না। আমার সঙ্গে একতার সমপর্কটা কেবল কাজ নিয়ে।

write a comment

0 Comments

No Comments Yet!

You can be the one to start a conversation.

Add a Comment

Your data will be safe! Your e-mail address will not be published. Also other data will not be shared with third person.
All fields are required.