উৎপাদন বৃদ্ধির পাশাপাশি শ্রমিকদের কল্যাণ নিশ্চিত

উৎপাদন বৃদ্ধির পাশাপাশি শ্রমিকদের কল্যাণ নিশ্চিত
February 13 16:01 2017

ঢাকা : হাসিনা বলেছেন, উৎপাদন বৃদ্ধির পাশাপাশি শ্রমিকদের কল্যাণ নিশ্চিত করতে শ্রম খাতে প্রয়োজনীয় সংস্কার করা হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, কলকারখানায় উৎপাদন বৃদ্ধির পাশাপাশি শ্রম খাতে শ্রমিকের কল্যাণ নিশ্চিত করতে আমাদের সরকার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিয়েছে এবং সংস্কার করেছে।

প্রধানমন্ত্রী  সন্ধায় গণভবনে যুক্তরাজ্যের লেবার ফ্রেন্ডস অব বাংলাদেশের একটি প্রতিনিধিদল তার সাথে সাক্ষাৎ করতে গেলে তিনি এ কথা বলেন। বৈঠক শেষে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহ্সানুল করিম সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন।

বৈঠকে সাবেক মন্ত্রী এবং লেবার পার্টির শ্যাডো কেবিনেটের হুইপ ড্যাপ রোজি উইন্টার টন এমপি লেবার পার্টির সংসদ সদস্য এবং নেতৃবৃন্দের সমন্বয়ে গঠিত দশ সদস্যের প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শ্রমিকদের কল্যাণে তার সরকার গৃহীত পদক্ষেপের বিস্তারিত বর্ণনা দিয়ে বলেন, শ্রম আইন সংশোধন করা হয়েছে এবং কলকারখানায় কাজের পরিবেশ উল্লেখযোগ্য হারে বৃদ্ধি পেয়েছে।

তিনি বলেন, সরকার শ্রমিকদের বিশেষ করে গার্মেন্টস শ্রমিকদের জন্য ডরমিটরি নির্মাণ করেছে এবং তাদের চিকিৎসা সুবিধা দেয়া হচ্ছে। তিনি বলেন, আমরা কলকারখানায় কাজের পরিবেশের উন্নতির জন্য সেখানে পরিদর্শনে শ্রম পরিদর্শক নিয়োগ দিয়েছি।

বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী এবং প্রতিনিধিদলের সদস্যরা ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে ব্রিটেনের বেরিয়ে যাওয়া ইস্যু নিয়ে আলোচনা করেন। শেখ হাসিনা পোস্ট-ব্রেক্সিট সময়কালে বাংলাদেশ ও যুক্তরাজ্যের মধ্যে অর্থনৈতিক সম্পর্কের ক্ষেত্রে কোন প্রভাব পড়বে কি-না জানতে চান।

প্রতিনিধিদলের সদস্যরা বলেন, লেবার পার্টি এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মধ্যে চমৎকার সম্পর্ক বিরাজ করছে। আগামী দিনগুলোতে এ সম্পর্ক আরো বৃদ্ধি পাবে বলে তারা আশা প্রকাশ করেন।

প্রতিনিধিদলের সদস্যদের মধ্যে ছায়া স্বস্থ্যমন্ত্রী জোনাথন এ্যাশওয়ার্থ এবং ছায়া স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ড. রুপা হকও রয়েছেন।

অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সিনিয়র সচিব সুরাইয়া বেগম উপস্থিত ছিলেন।

  Categories:
write a comment

0 Comments

No Comments Yet!

You can be the one to start a conversation.

Add a Comment

Your data will be safe! Your e-mail address will not be published. Also other data will not be shared with third person.
All fields are required.